Monday November 30, 2020
intellect logo

Home Episode বিয়ে নিয়ে যতো আয়োজন !

বিয়ে নিয়ে যতো আয়োজন !

আসাদ আবেদীন জয়
বিয়ে নিয়ে যতো আয়োজন !

একটা সময় ছিল যখন বিয়ে নিয়ে প্রায় মাস ব্যাপী প্রস্তুতি নিতে হতো বর-কনের পরিবারের সদস্যদের। সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে ব্যস্ততা আর সমানুপাতিক হারে কমছে অবসর। আর বিয়ের মতো বড়সড় উৎসবকে ঘিরে সাধ্যের মধ্যে সবটুকু করতে চান কম-বেশি সবাই। সেই বিয়ের কেনাকাটা থেকে শুরু করে খুটিনাটি সব কিছুর দিকে দৃষ্টি দেওয়া ও কষ্টসাধ্য। কিন্তু, ব্যস্ততার জীবনে এতো কিছু করার সময় কোথায়!

নিজের বা আপন জনের বিয়ের এই সাধের পরিকল্পনা এগোয় অনেক যত্নে। শাড়িটা কোন রঙের হবে, এ শাড়ির সঙ্গে বরের পোশাকটি মানাবে কিনা; এমন শত প্রশ্নে হাজার গবেষণা।

বিয়েতে সাধ্যের মধ্যে সবচেয়ে ভালোটা করার সাধ সবারই থাকে। অতিথিদের খাবারটায় আর ভালো কী করা যায়, অনুষ্ঠানের সাজসজ্জায়ও কত কী করার আছে, বিয়ের ছবিটা মনমত হলে ভালো হয় - বিয়ের এমন নানা অনুষঙ্গ নিয়ে রাজধানীতে হয়ে গেল বিয়ে উৎসব।

গত ১৮ ও ১৯ জানুয়ারি ঢাকার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে দু’দিন ব্যাপী এই হাজারো প্রশ্নের সহজ উত্তর মেলাতে দৈনিক প্রথম আলোর মঙ্গলবারের ক্রোড় পত্র নকশা এবং ইউনিলিভারের ব্র্যান্ড পন্ডসে্‌র উদ্যোগে আয়োজন করা হয় দ্বিতীয় আয়োজনের, আর এবারকার স্লোগান ছিল ‘বিয়ের বাজার দেশেই’।

দুদিনের বিয়ে উৎসবের আয়োজনে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রকে সাজানো হয়েছিল বিয়ে বাড়ির আদলে। ভেতরে ঢুকলেই আমেজ পাওয়া যায় বড়সড় কোন বিয়ে বাড়ির। যেখানে কোথাও কোন মডেল বসে আছেন বধূর সাজে কিংবা পালকীতে চড়ে ঘুড়ছেন নতুন বৌ। একই তালে তালে কোথাও বাজছে কাওয়ালী তো কোথাও গীটার, ড্রামসের তালে ব্যান্ড সঙ্গীত। এমন অনেক কিছুই চোখে পড়েছে এবারকার অনুষ্ঠানে। 

তবে এই সবকিছুর পরে এ উৎসবের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে দেশেই বিয়ের বাজার করা। এই উৎসবে অংশগ্রহণ করে বিয়ের প্রয়োজনীয় যাবতীয় পণ্য ও সেবাদাতা দেশি প্রতিষ্ঠানগুলো। এদের মধ্যে ছিল সৌন্দর্যচর্চা, অনুষ্ঠান ব্যবস্থাপনা, ফ্যাশন হাউস, গয়না তৈরি, খাবার প্রস্তুত ও সরবরাহকারী,বিয়ের ছবি তোলা ও ভিডিও করা, আনুষঙ্গিক সজ্জা, হোটেল রিসোর্ট, পর্যটন সংস্থা, গৃহস্থালির পণ্য ও প্রসাধনী পণ্যের প্রতিষ্ঠানগুলো। এছাড়াও ছিল বিয়ের কার্ড তৈরির প্রতিষ্ঠান আজাদ প্রোডাক্টস, বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য হল ম্যারিয়ট কনভেনশন সেন্টার, কাঠ খোদাই করে উপহার তৈরি করা প্রতিষ্ঠান উডপেকার। আর পাত্র-পাত্রীর খোঁজে স্টলনিয়ে বসেছিল বিবাহবিডি ডটকম ও শাদিবাজার। 

এখনকার বিয়েগুলোতে নতুনভাবে যুক্ত হয়েছে বিয়ের আলোকচিত্র বা ওয়েডিং ফটোগ্রাফী। যা আগের সময়ে বিয়েতে তেমন একটা লক্ষ্য করা যেতনা। এ বিষয়ে আলোকচিত্রী চঞ্চল মাহমুদ বলেন, “আগে মানুষ বিয়েতে পাড়ার ফটোগ্রাফার দিয়ে ছবি তুলাতো, কিন্তু এখন এর পরিবর্তন হয়েছে। এখন এই পেশায় অনেক ছেলে-মেয়েরা আসছে। আর এর মাধ্যমে বলা যায় যে এটা পেশাও হতে পারে।” তিনি আরও বলেন, “বিয়েটা যে একটা উৎসব সেটা এখানে বোঝা যাচ্ছে। আর এই আয়োজন করার আয়োজকেরা প্রশংসার দাবীদার। আমার মতে এই আয়োজন আরো বেশি সময় নিয়ে হওয়া উচিত, কমপক্ষে ১৫ দিন সময় নিয়ে হওয়া উচিত।”

biye utshob

বিয়ের মেকআপে এসেছে ভিন্নতা। মেকআপ: কিউবেলা

বিয়েতে কনের সাজসজ্জা নিয়ে সৌন্দর্যচর্চা প্রতিষ্ঠান কিউবেলার কো-অর্ডিনেটর মেরিলিন বলেন, “আগের থেকে এখনকার সাজে অনেক পরিবর্তন এসেছে। এখন নরমালভাবে গর্জিয়াস করে সাজানো হয়। মেকআপটা হয় সিম্পল, স্কিনকে ক্লিন রেখে সাজানো হয়। আর ড্রেসের সঙ্গে মেকআপের একটা মিলতো আছেই। আর মূলত আমাদের বিশেষত্ব হচ্ছে আমরা আমরা লাইট এবং সিম্পল মেকআপ করি।”

বিয়ের কনের সাজের সাথে বরের পোশাকেও এসেছে পরিবর্তন। এ ব্যপারে পোশাকের ব্র্যান্ড লুবনান-এর সিনিয়র সেলস এক্সিকিউটিভ বলেন, আগে বরের শেরওয়ানী ছিল লম্বা কিন্তু এখন এটার পরিবর্তন এসেছে। এখন শেরওয়ানী আমরা হাটু পর্যন্ত লম্বা করি। আর পাঞ্জাবিতেও আমরা পরিবর্তন এনেছি। আগে পাঞ্জাবিতে অনেক বেশি নকশা থাকত। যেটা তারা পরে আর পড়তে পারতো না। তাই আমরা সিম্পল নকশার পাঞ্জাবি এনেছি যাতে তারা বিয়ে ছাড়াও অন্যান্য আয়োজনে পড়তে পারে।”

বিয়ের অনুষ্ঠানের এক প্রধান অনুষঙ্গ হচ্ছে বিয়ের আমন্ত্রনপত্র। এবারের আয়োজনে বাদ পড়েনি এটি। এ ব্যপারে আজাদ প্রোডাক্টসের ব্রাঞ্চ ম্যানেজার কাজী রেজাউল ইসলাম বলেন, বিয়ের আমন্ত্রণের জন্য কার্ড লাগবেই, এটা ছাড়া হবে না। তাই আমরা এবার বিয়ে উৎসবে আমাদের কোম্পানির প্রোডাক্ট নিয়ে এসেছি।”

woodpecker ply wood card

উডপেকার নামের এক প্রতিষ্ঠানের তৈরি প্লাইউডে খোঁদাই করা কার্ড

তবে সময়ের সঙ্গে বিয়ের কার্ডেও লেগেছে পরিবর্তনের হাওয়া। এখন কাগজে প্রিন্টের কার্ডের সঙ্গে এসেছে প্লাইউডে খোঁদাই করা কার্ড। আর এই পরিবর্তন নিয়ে এসেছে উডপেকার নামের এক প্রতিষ্ঠান। উডপেকারের ডিরেক্টর নাসির উদ্দিন বলেন, “আমরা আসলে কাঠের উপর খোঁদাই করে কাজ করি। এখন আমরা বিয়ের কার্ডও প্লাইউডে খোঁদাই করে তৈরি করে দিচ্ছি। এছাড়াও আমরা বিভিন্ন ধরনের গিফট তৈরি করি। গয়নার বাক্স, চাবির রিং নানা কিছু। মজার ব্যপার হচ্ছে আমরা এখন কোন ছবিকে কাঠে খোঁদাই করার কাজও করছি, যা প্রিন্টের ছবির থেকে দীর্ঘস্থায়ী এবং দৃষ্টিনন্দন”। 

বিয়ের হবে আর গান-বাজনা হবেনা, তাতো হয়না। ঢাকা ১২০৭ ব্যান্ডের ভোকাল রনি জানান, “আমরা সাধারনত ফোক ফিউসন করি, এছাড়া রক, মেলোরক করি। আমরা বিয়ে বা কমার্শিয়াল প্রোগ্রামে কাজ করি। এছাড়া কর্পোরেট প্রোগ্রামগুলোতে গান করে থাকি।”

বিয়ের সব অনুষ্ঠান শেষেও রয়েছে আরেক আকর্ষন, তা হচ্ছে মধুচন্দ্রিমা। এই বিয়ে উৎসবে এরাও বাদ পড়েনি। এই অনুষ্ঠানে ছিল বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনের একটি স্টল। এর সহকারী নির্বাহী কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন মৃধা জানান, “মধুচন্দ্রিমার সঙ্গে পযর্টন ওতোপ্রতো ভাবে জড়িয়ে আছে।  আমার এখানে এসেছি আমাদের দেশের পর্যটন কেন্দ্রগুলোর সাথে সবার পরিচয় করানোর জন্য। এছাড়া মধুচন্দ্রিমার ব্যপারটাতো থাকছেই”।  

রিসোর্ট দ্যা প্যালেস-এর উর্ধ্বতর কর্মকর্তা সৈয়দ ইয়ামেনুল হক বলেন, “আমাদের রিসোর্ট ‘দ্যা প্যালেস’ এ নব দম্পতিদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা রয়েছে। আমাদের এখানে হানিমুন কাপলদের জন্য কাপল স্যুইট রয়েছে। যেখানে তারা সুন্দর সময় কাটাতে পারবে”।   

পন্ডস-নকশা বিয়ে উৎসবে অংশ নিয়েছে বিয়ের প্রয়োজনীয় যাবতীয় পণ্য ও সেবাদাতা দেশি প্রতিষ্ঠানগুলো। এদের মধ্যে রয়েছে প্রসাধনী পন্ডস; সৌন্দর্যচর্চা কেন্দ্র পারসোনা, রেড বিউটি পারলার অ্যান্ড স্পা, হারমোনি স্পা ও ক্লিওপেট্রা বিউটি স্যালন, অরা বিউটি পারলার; অনুষ্ঠান ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠান ভার্সেটাইল ইভেন্টস; আনুষঙ্গিক সজ্জার প্রতিষ্ঠান গ্রিন বক্স ইভেন্ট, রয়্যাল ওয়েডিং, ক্যান্ডল লাইট এবং বার্জার পেইন্ট; ফ্যাশন হাউস ড্রেসিডেল, মানিক বেনারসী, লুবনান ও ইনফিনিটি; গয়না তৈরির প্রতিষ্ঠান অ্যারাবিয়ানস; খাবার প্রস্তুত ও সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ফকরুদ্দিন বিরিয়ানি, প্রিমিয়ার ক্যাটারিং, রস, ইবরাহিম ক্যাটারিং, ওয়েস্টার, পানসুপারি; বিয়ের ছবি তোলা ও ভিডিও করার জন্য ওয়েডিং ডায়েরি, ড্রিমউইভার, ওয়েডিং চ্যাপেল, ওয়েডিং কালারস, ইশরাত আমিন ফটোগ্রাফি; হোটেল রিসোর্ট হোটেল দ্য প্যালেস, কক্স টুডে, মারমেইড, দুসাই রিসোর্ট, ছুটি; পর্যটন সংস্থা বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন, বেঙ্গল ট্যুরস, ট্যুর বিডি ডটকম, ভ্রমণ ডটকম ডট বিডি। 

এ ছাড়া আয়োজনে আরও যোগ দেয় মমতাজ মেহেদী, স্পার্ক এন্টারটেইনমেন্ট, চুল প্রসাধনী কুমারিকা, গৃহস্থালির পণ্য টাপারওয়্যার, বালিশ ও শোবার ঘরের জিনিসপত্রের প্রতিষ্ঠান ইকো ড্রিমস। প্রকাশনা সংস্থা প্রথমা প্রকাশনের স্টলও ছিল উৎসবে।

আর পুরো এ আয়োজনের মূল প্রতিপাদ্যই ছিল একটি, আর সেটি হচ্ছে দেশে গড়ে ওঠা বিয়ে কেন্দ্রীক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতি নির্ভরশীলতা বাড়ানো। 

ছবি: ইন্টালেক্ট/ আসাদ আবেদীন জয়

January 21, 2016
Kazifarms Kitchen

Recent Posts


the2hourjob.com MARKS BANGLADESH'S ENTRY INTO THE 'GIG ECONOMY'

The2hourjob.com marks Bangladesh's entry into the 'Gig Economy' - a new milestone that Bangladesh has now achieved during the Digital Bangladesh era. 

The2hourjob.com is here to make us count on women and to make women look beautiful...

FUTURE SAMSUNG GALAXY PHONES COULD READ YOUR PALMS

Samsung files a patent for fetching patterns of password with palm verification.

NEW BARBIE DONS A HIJAB!

The world’s favourite beauty queen has been spotted in a hijab for the first time ever in a tribute to the bold Ibtihaj Muhammad, the first American Olympian to compete...