Friday December 04, 2020
intellect logo

Home Events বাড়িতে কেউ নেই

বাড়িতে কেউ নেই

আসাদ আবেদীন জয়
বাড়িতে কেউ নেই

বাংলাদেশের আঙিনায় শিল্পী তৈয়বা বেগম লিপির প্রথম একক প্রদর্শনী হয় ২০০৭ সালে। তারপর, ২০১৫ সালে শুরু হয় তাঁর আরেকটি একক প্রদর্শনী “নো ওয়ান হোম”, রাজধানীর গুলশানে অবস্থিত বেঙ্গল আর্ট লাউঞ্জ এ। এই প্রদর্শনীতে প্রদর্শিত হচ্ছে নারীদের দৈনিক ব্যবহার্য জিনিসপত্র। হিল জুতা, হ্যান্ড ব্যাগ, সেলাই মেশিন, বাথটাব ইত্যাদি। কিন্তু এর কোনটাই সাধারন মাধ্যমের না। প্রদর্শিত এই সব জিনিসপত্রগুলোই তৈরি করা হয়েছে স্টেইনলেস স্টিলের রেজর ব্লেড কিংবা সেফটিপিন দিয়ে। 

 

photo from the event

photo from the event

photo from the event

 

এছাড়া এই প্রদর্শনীতে আরো প্রদর্শিত হচ্ছে শিল্পীর পেন্সিলে ও কালিতে আঁকা কিছু চিত্রকর্ম এবং তিনটি ভিডিও আর্ট। তাঁর ড্রয়িং গুলোতে মূলত বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে শরীরের নানান পরিবর্তন এবং শরীরের ওপর তাঁর প্রভাব প্রকাশ পায়; বাহ্যিক ও শরীরগত এই বিষয়গুলো মানবজাতির নশ্বরতার প্রতীক হয়ে উঠে এসেছে, যা কিনা একেবারেই ব্যক্তিগত কিন্তু সার্বজনীন। আবার ভিডিও আর্টগুলোতে দেখা যাচ্ছে তাঁর ছোট বেলার একটি মুহূর্ত। পাশেই আবার দেখা যাচ্ছে তিনি তাঁর পূর্বপুরুষদের কবর পরিষ্কার করছে, যা কিনা  ছোটবেলা থেকে মৃত্যুর দিকে ধাবিত হওয়ার এক প্রকাশ।  

 

photo from the event

 

photo from the event

 

প্রদর্শনীর শিরোনাম সম্পর্কে শিল্পী তৈয়বা বেগম লিপি বলেন, “গ্যালারীতে ঢুকলে মনে হয় যেন অন্য কারও বাসায় এসেছি। কারন এখানে ব্যবহার্য জিনিসপত্র রয়েছে, সবগুলো লাইটও জ্বলছে। কিন্তু বাড়িতে যে মানুষগুলো থাকার কথা ছিল তাঁরা কেউই নেই। এটাই হচ্ছে এমন নামের কারন”।  

স্টেইনলেস স্টিলের রেজর ব্লেড দিয়ে কাজ করা শিল্পী তৈয়বা বেগম লিপির অনেকদিনের চর্চা। রসাত্মক কিংবা ব্যাঙ্গার্থকভাবেই শিল্পী কাজ করেন ধাতব মেটিরিয়াল দিয়ে যা কিনা আপাত ধর্মে কোন কিছু কেটে ছিঁড়ে ফেলতে ব্যবহার করা হয়। এইসব মেটিরিয়াল বেশি ব্যবহার করে পুরুষরা। কিন্তু তিনি আপার্তবৈপরীতা তৈরি করে এই মেটিরিয়াল দিয়ে নারীর নিত্য ব্যবহার্য জিনিসপত্র তৈরি করে।

তাঁর কাছে রেজর ব্লেড এমন এক বস্তু যা তাঁর দেখা ছোট বেলার স্মৃতির জগতের নারীত্বের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। ছোটবেলায় তিনি দেখেছেন গরম পানিতে ব্লেড ফুটিয়ে নিয়ে তা ব্যবহার করা হয় জন্মের পর মায়ের সঙ্গে নবজাতকের নাড়ি কাটার কাজে। এভাবে তাঁর কাছে ব্লেড হয়ে ওঠে নারীত্বের এক শক্তি ও স্থিতিস্থাপকতায়। 

“নো ওয়ান হোম” শিরোনামের এই প্রদর্শনীটি শুরু হয়েছে ডিসেম্বরের ৫ তারিখে, চলবে ৯ই জানুয়ারী ২০১৬ পর্যন্ত, প্রতিদিন দুপুর ১২টা থেকে রাত ৮টা। 

December 21, 2015
Kazifarms Kitchen

Recent Posts


the2hourjob.com MARKS BANGLADESH'S ENTRY INTO THE 'GIG ECONOMY'

The2hourjob.com marks Bangladesh's entry into the 'Gig Economy' - a new milestone that Bangladesh has now achieved during the Digital Bangladesh era. 

The2hourjob.com is here to make us count on women and to make women look beautiful...

FUTURE SAMSUNG GALAXY PHONES COULD READ YOUR PALMS

Samsung files a patent for fetching patterns of password with palm verification.

NEW BARBIE DONS A HIJAB!

The world’s favourite beauty queen has been spotted in a hijab for the first time ever in a tribute to the bold Ibtihaj Muhammad, the first American Olympian to compete...